• f
  • t
  • g+

গরমে হিজাবে অস্বস্তি? জেনে নিন সঠিক শ্যাম্পু ও যত্ন

আপলোড : ঢাকা , মঙ্গলবার, ০৪ মে ২০২১

কুমিল্লা প্রতিদিন :
  • লাইফস্টাইল ডেস্ক
image

কিশোরী-তরুণী-বৃদ্ধা অনেক নারীই এখন হিজাব ব্যবহার করেন। হিজাব পরা এখন তরুণীদের কাছে ফ্যাশনেরও অংশ।

বিশেষ করে গরমের দিনে হিজাব ব্যবহারের অনেকের অস্বস্তি হয়। চুল অনেক সময়ই নিস্তেজ হয়ে যায়, চুলের গোড়া নরম হয়ে পড়তে শুরু করে। চুলের অবস্থা থেকে হিজাব পরাই অনেকের জন্য সমস্যা হয়ে যায়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, গ্রীষ্মকালে দীর্ঘ সময় হিজাব পরার কারণে মাথার ত্বক ঘেমে চুলের গোড়ায় ব্যাকটেরিয়া ও ফাঙ্গাস সৃষ্টি হতে পারে। এতে মাথার ত্বক চিটচিটে এবং চুলকানির সৃষ্টি হয়। এসব সমস্যা সমাধানে সবচেয়ে বেশি জরুরি চুল পরিষ্কার রাখা।

এজন্য গরমের সময় প্রয়োজনে প্রতিদিন চুলে শ্যাম্পু করতে হবে। ক্ষতিকর কেমিক্যাল কম আছে এমন কোনো শ্যাম্পু দিয়ে চুল পরিষ্কার করতে হবে। তাই খোঁজ রাখতে হবে কোন ধরনের শ্যাম্পু ব্যবহারে উপকার পাওয়া যাবে আবার হিজাব ব্যবহারেও অস্বস্তি হবে না।

অনেক সময় চুলের গোড়ার ঘাম না শুকালে, অতিরিক্ত তেলযুক্ত খাবার খেলে, চুলের ধরনের সঙ্গে মানানসই নয় এমন শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার ব্যবহার করলেও চুল পড়ে। তবে গরম আবহাওয়ার জন্য বিশেষভাবে তৈরি শ্যাম্পু হিজাব ব্যবহারকারীদের মাথার ত্বক সুস্থ ও চুলের সব ধরনের সমস্যা দূর করে গরমেও এনে দেবে স্বস্তি।

খোঁজ নিলে বাজারে এ ধরনের বেশ কিছু শ্যাম্পু আপনারা পেয়ে যাবেন। তবে খোঁজাখুজির ঝক্কি পোহাতে না চাইলে কিনে নিতে পারেন

শ্যাম্পু ব্যবহার করার নিয়ম

সপ্তাহে অন্তত দু’দিন শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে।

শ্যাম্পু ব্যবহারের আগে পুরো চুল ভিজিয়ে নিন। এবার পরিমাণমতো শ্যাম্পু নিয়ে আলতোভাবে ঘষুন। পর্যাপ্ত পানি দিয়ে হালকা ঘষে ধুয়ে নিন।

এছাড়াও শ্যাম্পু করার আগে চুলের স্বাস্থ্য রক্ষায় সপ্তাহে একদিন একটি পাকা কলা, একটি ডিম এবং তিন টেবিল চামচ টক দই একসঙ্গে মিশিয়ে পুরো চুলে লাগিয়ে দু'ঘন্টা পর শ্যাম্পু করে ফেলতে হবে।

চুল পড়া বন্ধ করতে সপ্তাহে একবার এক টেবিল চামচ রসুনের রস ও আধা কাপ নারকেল তেল মিশিয়ে অল্প আঁচে জ্বাল দিন। কুসুম গরম হয়ে আসলে এটি মাথার তালুতে ম্যাসাজ করে লাগান। এক ঘণ্টা রেখে তারপর শ্যাম্পু করে ফেলুন।

খুশকি তাড়াতে জলপাই বা নারিকেল তেল হালকা গরম করে মাথায় এক ঘণ্টা লাগিয়ে রাখুন। দু’এক ফোঁটা সুগন্ধি ল্যাভেন্ডার তেল যোগ করে দিন।

শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। আপনার চুল শুধু খুশকি মুক্তই হবে না, হবে আকর্ষণীয়ও।

হিজাব ব্যবহারে যে বিষয়গুলো মানতে হবে

গোসলের পর হিজাব পরার আগে বাতাসে চুল পুরোপুরিভাবে শুকিয়ে নিতে হবে। এক্ষেত্রে একান্ত প্রয়োজন না হলে হেয়ার ড্রায়ারের ব্যবহার এড়ানো ভালো

হিজাব পরলে চুল খুব শক্ত করে বাঁধা যাবে না। খুব বেশি ক্লিপ-স্প্রে ব্যবহার থেকেও বিরত থাকতে হবে।

মাথার ত্বকে ও চুলে অক্সিজেন প্রবেশের সুবিধার্থে গরমের সময় সিনথেটিক কাপড়ের পরিবর্তে নরম সুতি কাপড়েরর স্কার্ফ ব্যবহার করা ভালো। বাইরে গেলে ফিরে এসেও বাতাসে চুল ভালো করে শুকিয়ে নিন।

চুল পড়া প্রতিরোধে শ্যাম্পু গুলো খুবই কার্জকরি। চুলের সৌন্দর্য্য চর্চার জন্য সঠিক পণ্য বাছাইয়ের ক্ষেত্রে যারা অত্যন্ত সচেতন, তাদের অধিকাংশই পণ্যের লেবেল যাচাই করে নেন। আর তাই শ্যাম্পু কেনার আগে অবশ্যই মেয়াদ দেখে নিন। খোলার পর থেকে ১ বছর ব্যবহার করা যায়।